এই পথ যদি না শেষ হয় থেকে আচমকাই বাদ পড়লেন, ক্ষোভ উগরে দিলেন অভিনেতা

জি বাংলার (Zee Bangla) এই পথ যদি না শেষ হয় (Ei Poth Jodi Na Sesh Hoi) ধারাবাহিকটি এই মুহূর্তে চ্যানেলের একটি অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক। এই ধারাবাহিকের কাস্টিংটাও জনপ্রিয়তার পেছনে আরেক গুরুত্বপূর্ণ কারণ। প্রধান ভূমিকায় অন্বেষা হাজরা এবং ঋত্বিক মুখার্জী ছাড়াও একাধিক জনপ্রিয় অভিনেতা এবং অভিনেত্রী রয়েছেন ধারাবাহিকে। সব মিলিয়ে মুখার্জি বাড়ির যৌথ পরিবারের কেমিস্ট্রিটা দর্শকরা দারুণ উপভোগ করেন। কিন্তু আচমকাই পরিবারে ধরেছে ভাঙ্গন।






আচমকাই এই ধারাবাহিক থেকে বাদ পড়েছেন জনপ্রিয় এক অভিনেতা। তিনি হলেন সকলের প্রিয় ‘ছোট দাদু’ অর্থাৎ ফাল্গুনী চ্যাটার্জী (Falguni Chatterjee)। ফাল্গুনী চ্যাটার্জিকে বিগত কয়েকদিন ধরে ধারাবাহিকে আর দেখা যাচ্ছে না। স্বভাবতই এতে প্রশ্ন দানা বাঁধছে ভক্তদের মনে। শেষমেষ তাদের আশঙ্কাই সত্যি হল। ধারাবাহিক থেকে সরিয়েই দেওয়া হয়েছে ‘ছোট দাদু’কে।






তবে একা ‘ছোট দাদু’ নয়, ‘ছোট ঠাম্মি’কেও ইদানিং ধারাবাহিকে দেখা যাচ্ছে না। আসলে তিনি তার প্রথম সিনেমা পরিচালনা করার জন্য ধারাবাহিক থেকে কিছুদিনের জন্য ব্রেক নিয়েছেন। তাই মানসী সিনহা (ছোট ঠাম্মি) এই ধারাবাহিক থেকে মিসিং। কিন্তু ফাল্গুনী চ্যাটার্জির ক্ষেত্রে এমন কোনও কারণ নেই। তবুও কেন তাকে ধারাবাহিকে দেখা যাচ্ছে না? এই প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে ক্ষোভ উগরে দিলেন অভিনেতা।

ঠিক কী বলেছেন তিনি? তার কথা থেকে জানা যাচ্ছে তিনি নিজে থেকে ধারাবাহিক ছেড়ে সরে দাঁড়াননি। কোনও কারণ ছাড়াই তাকে ধারাবাহিক থেকে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়েছে। আর এতে মনে মনে বেশ আঘাত পেয়েছেন বর্ষীয়ান এই অভিনেতা। তার মনের মধ্যে জমে থাকা ক্ষোভ তার জবাবের প্রতি ছত্রে ছত্রে ধরা পড়েছে।







নির্মাতাদের দিকে আঙুল তুলে তিনি প্রশ্ন করেছেন, “বিগত আড়াই মাস ধরে এই প্রশ্নের উত্তর না পেয়ে আমি অন্ধকারে। আমি তো ভেবে পাইনা প্রায় প্রতিদিন উপস্থিতির পর আদর্শ যৌথ পরিবার ‘সরকার বাড়ি’র দুটো গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র কি করে কোন কারণ না দেখিয়ে ভ্যানিশ হয়ে যেতে পারে? গল্পের বিশ্বাসযোগ্যতা কি তাতে মজবুত হয়? আমি জানি না, সত্যিই জানি না ভাই।” ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ থেকে আচমকা সরে যাওয়াতে ইতিমধ্যেই ছোট দাদু এবং ছোট ঠাম্মিকে বেশ মিস করতে শুরু করেছেন দর্শকরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *