শ্বশুর-শাশুড়ির সঙ্গে এই বিশাল বাড়িতে থাকেন ঐশ্বর্য! ঘরের ছবি দেখে চোখ ফেরাতে পারবেন না

বচ্চন পরিবারকেই বলিউডের প্রথম পরিবার বলে মনে করা হয়। এবং আপনি যদি তাঁদের সব দিকে নজর নাও রাখেন, তাও এই কথা সবাই জানেন যে, জুহুতে থাকেন তাঁরা। অমিতাভ বচ্চন তাঁর স্ত্রী জয়া বচ্চন, ছেলে অভিষেক বচ্চন, পূত্রবধূ ঐশ্বর্য রাই বচ্চন ( aishwarya rai bachchan )এবং নাতনি আরাধ্যা বচ্চনের সঙ্গে সেখানে থাকেন। তাঁদের ‘জলসা’ সবারই চেনা।

১৯৮২ সালে পরিচালক রমেশ সিপ্পি অমিতাভকে এই বাংলো উপহার দিয়েছিলেন। জলসার এক একটি ঝলক দেখলে চোখে ধাঁধা লেগে যায়। তারকা পরিবারের ইনস্টাগ্রামের নানা ছবিতেই সেই ঝলক দেখতে পাওয়া যায়…(ছবি- ইনস্টাগ্রাম





বচ্চন পরিবারের বসার ঘরটিই অসাধারণ। সেখানে সাবেকিয়ানার ছোঁয়া পাবেন আপনি। এখানে পাবেন নানা ধরনের আর্ট কালেকশন। যা আভিজাত্যের ছোঁয়া অনুভব করায়। এছাড়াও বিভিন্ন ভিন্টেজ শোপিস রয়েছে এখানে। কাচের তৈরি ঝারবাতি প্রশংসা করার মতোই। এছাড়াও লম্বা লম্বা কাচের দরজা রয়েছে। সুন্দর মার্বেলের মেঝের উপর পাতা তুর্কির কার্পেট। যা ঘরের সৌন্দর্যকে সম্পূর্ণ করে।

আভিজাত্যের ছোঁয়া

অমিতাভ বচ্চনের এই বাংলোয় সর্বত্রই রয়েছে আভিজাত্যের ছোঁয়া। দেওয়ালে রয়েছে সুন্দর পেন্টিং। মুঘন ঘরানার এবং পার্সি টাচ রয়েছে সেখানে। অসাধারণভাবে সাজানো হয়েছে সর্বত্রই। সুন্দর সোফা সেট রাখা আছে বসার ঘরে। দেওয়ালের সৌন্দর্যও চোখে পড়ার মতো।

সুন্দর সবুজ বাগান

অমিতাভ বচ্চন এবং জয়া বচ্চনের ফর্ম্যাল লিভিং রুম এবং ডাইনিংয়ের বাইরেই রয়েছে সুন্দর উঠোন। সেখানে নানা ধরনের গাছ রয়েছে। সাকুলেন্ট রয়েছে। অন্যান্য গাছ এবং ট্রপিক্যাল প্ল্যান্টও রয়েছে। আরাধ্যার জন্য সুন্দর খেলার জায়গাও রয়েছে এখানে। এই উঠোনের একদিকে রয়েছে একটি বারান্দা। যার সুন্দর গ্রে ফ্লোর চোখে পড়ার মতো। সেখানে পরিবারের সবাই মিলে একসঙ্গে সময় কাটাতে পারেন।

কোনও বর্ষার দিনে একসঙ্গে বসে সবাই বিকেলে চা খেতে পারেন। ভালো সময় কাটে এখানে। দীপাবলিতেও উদযাপন করতে দেখা যায় বচ্চন পরিবারকে।

ভালোবাসার পরিবার






বচ্চন পরিবারে রয়েছে একটি সুন্দর ফ্যামিলি রুমও। সেখানে পরিবারের নানা মুহূর্তের ছবি আমরা ইনস্টাগ্রামে দেখতে পাই। বাড়ির একটি নির্দিষ্ট স্থান সেভাবেই সাজানো হয়েছে। সেখানে রাখা রয়েছে পরিবারের সদস্যদের ছবি। এছাড়াও লাইম গ্রিন রঙের সোফা সেট সাজানো রয়েছে।

সুন্দর ওয়ার্ম লাইটে বেড়েছে ঘরের সৌন্দর্য। কন্টেম্পরারি পেন্টিং দিয়ে সাজানো হয়েছে এই ঘর।

কাজের জন্য সঠিক জায়গা

বাড়ি তৈরি করার সময় এই দিকটায় সবসময় খেয়াল রাখা উচিত। বাড়িতে যথেষ্ট জায়গা থাকলে একটি সুন্দর স্টাডি থাকা প্রয়োজন। সেরকম জায়গা রাখা প্রয়োজন। আপনি আলাদা ঘরও বরাদ্দ করতে পারেন। আর নাহলে নির্দিষ্ট ঘরের মধ্য়েই আলাদা একটি জায়গা করে নিতে পারেন।

বচ্চন পরিবারেও সুন্দর স্টাডি রয়েছে। যা সবারই চোখে পড়েছে। সেখানে বসে কাজ করার মুহূর্তও শেয়ার করে নিয়েছিলেন অমিতাভ। স্টাডিতে রয়েছে একটি সুন্দর কাঠের টেবিল। কাঠের সৌন্দর্যে সাজানো হয়েছে দেওয়াল। অনেক বই রাখা আছে সেখানে।

জিম





শরীরচর্চাও যে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তা ভালোই বোঝে বচ্চন পরিবার। তাই তাঁদের পরিবারে এই সুন্দর পার্সোনাল জিমও আছে। সেই ছবি নিজেই শেয়ার করেছিলেন অমিতাভ বচ্চন। তাঁদের বাড়ির সাজসজ্জার পাশাপাশি এই দিকেও নজর রাখেন তাঁরা। জিমে নানা ধরনের কনটেম্পরারি ইকুুইপমেন্ট আছে। সেখানে ভালোভাবেই শরীরচর্চা করতে পারেন পরিবারের সদস্যরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *