Breaking News

ক্রাশকে সরাসরি ভিডিয়ো কল, অসুস্থ প্রতিযোগীর ইচ্ছেপূরণ করলেন অমিতাভ!

রিয়ালিটি শো’তে অংশ নিয়ে এভাবে একের পর এক মনোবাঞ্ছা যে পূর্ণ হবে তা বোধহয় নিজেও ভাবেননি ছত্তিশগড়ের পঙ্কজ কুমা'র সিং। কিন্তু স্বপ্ন সত্যি হল। নতুন ফোন কেনার শখ থেকে শুরু করে ক্রা'শের স'ঙ্গে ফোনে কথা… হঠাৎ করেই পঙ্কজের জীবনে যেন বসন্ত এসে গেছে। আর তাঁর যাব'তীয় স্বপ্ন সত্যি করার কাণ্ডারী অমিতাভ বচ্চন।

ছত্তিশগড়ের ওই যুবক কউন বনেগা ক্রোড়পতিতে এসেছিলেন প্রতিযোগী হয়ে। সেখানেই কথার মাঝে তিনি বিগ-বি’কে জানান অ'ভিনেত্রী জেনেলিয়া ডি’সুজার প্রতি তাঁর অনুরাগের কথা। বচ্চনও জানান, ছবিতে অ'ভিষেক হওয়ার আগে জেনেলিয়া তাঁর স'ঙ্গে অনেক কাজ করেছেন। এমনকি জেনেলিয়ার টিভির প্রথম কাজ তাঁর স'ঙ্গেই। এর পরেই হটসিটে বসে বসেই জেনেলিয়াকে ফোন ঘোরান বিগ-বি। সবাইকে অবাক করে দিয়ে ভিডিয়ো কলে কথা বলান পঙ্কজের স'ঙ্গে। পঙ্কজ তখন স'প্ত ম স্বর্গে। কাঁপা কাঁপা গলায় তাঁকে বলতে শোনা যায়, “আজই আমা'র সব স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে। জীবনে এর চেয়ে বেশি কিছু চাওয়ার নেই আমা'র।”

শারীরিক ভাবে অসুস্থ বছর ৩০-এর ওই যুবক। তাঁর স্পন্ডেলাইটিস রয়েছে। গত ১০-১৫ বছরের বেশিরভাগ সময়ই কে'টেছে বিছানায় শুয়ে। উঠে দাঁড়াতে পারতেন না। স্নাতক হয়েও কাজ পাননি কোনও। এই শো শেষে পঙ্কজ আয় করেন ১২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা। বিশ্বা'সই হচ্ছে না তাঁর। ওই টাকা দিয়েই বাড়ির সামনে মুদিখানার দোকান খুলতে চান তিনি। পাশাপাশি অমিতাভের স'ঙ্গে খেলার সুযোগ পেয়েও আবেগ ধরে রাখতে পারেননি পঙ্কজ। বিগ-বিও তাঁকে ফোন ও ট্রাইপড উপহার দেন। একদিনে সব স্বপ্নের সত্যি হওয়া… এখনও যেন বিশ্বা'সই হচ্ছে না তাঁর।

এ বারের কেবিসি গত বছরের থেকে অনেকটাই আলাদা। গত বছর কোভিড পরিস্থিতিতে লাইভ অডিয়েন্সের সেগমেন্টটির পরিবর্তে আনা হয়েছিল ভিডিয়ো এ ফ্রেন্ড। করো’না পরিস্থিতিতে সবটাই ভার্চুয়াল। কেবিসির ঘরেও সেই ব্যবস্থাই নেওয়া হয়েছিল। তবে এ ব্যাপারে আবারও লাইভ অডিয়েন্সের ব্যবস্থা। শুধু তাই নয়, এ বারে গেম টাইমা'রেরও এক নতুন নাম দেওয়া হয়েছে। নাম দেওয়া হয়েছে ‘ধুক ধুকি জি’। সেটও সাজানো হয়েছে এলইডি দিয়ে। ভার্চুয়াল সিলিং আর গেমপ্লে গ্রাফিক্স তাতে যোগ করেছে অন্য মাত্রা।

গত বছর অডিয়েন্স যখন ছিলেন না লাইভে মন খারাপ হয়েছিল স্বয়ং অমিতাভেরও। সে প্রস'ঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, “প্রথম বার স্টুডিয়োতে দর্শক নেই। লাইফলাইনের অ’পশনেরও পরিবর্তন আনতে হয়েছিল।” তবে এ বারে তিনি খুশি। আবারও সেই চেনা আমেজ আর চেনা মেজাজে শাহে'নশাহ। মনের আনন্দ ব্যক্ত করে দিন কয়েক আগেই অমিতাভ সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন ছবি। ক্যাপশনে লিখেছিলেন, “ফিরলাম… ২০০০ সাল থেকে ওই চেয়ারটায় বসছি আমি। ২১ বছর কে'টে গেল। জীবনভরের অ'ভিজ্ঞতা। শো থেকে অনেক কিছু পেয়েছি। আমা'র এই লুকটাও।” কেবিসি’র এই সিজনে সর্বোচ্চ পুরস্কার মূল্য ধার্য করা হয়েছে ৭ কোটি টাকা। সোম থেকে শুক্রবার রাত ৯টায় সোনি টিভিতে দেখা যায় কেবিসি।

About Admin_dhakasongbad

Check Also

আমিরের সঙ্গে রোম্যান্সে মশগুল করিনা, ‘লাল সিং চড্ডা’ নিয়ে সুখবর দিলেন বেবো

করো’নার জেরে বারবার ব্য'হত হয়েছে ‘লাল সিং চড্ডা’র শ্যুটিং, পিছিয়েছে মুক্তির তারিখও। শেষমেষ ঠিক ছিল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *